কিভাবে ব্লগ থেকে আয় করবেন [ ব্লগ থেকে আয় করার একটি পরিপূর্ণ গাইডলাইন ২০২২]

কিভাবে ব্লগ থেকে আয় করবেন

আজকে আমি আলোচনা করব কিভাবে আপনি ব্লগ থেকে আয় করতে পারবেন। এজন্য আপনার চাই লেখার ক্ষমতা। অনলাইনে ব্লগিং করে আয় করার জন্য আপনাকে কয়েকটি ধাপ অনুসরণ করতে হবে। চলুন জেনে নেই একে একে সেই ধাপগোলো কি কি?ব্লগ থেকে আয়

ব্লগ থেকে আয় ১ম ধাপ

ব্লগ থেকে আয় ১ম ধাপে আপনাকে ব্লগিং করার জন্য নিশ সিলেক্ট করতে হবে। নিশ মানে হল আপনি কোন বিষয় নিয়ে ব্লগিং শুরু করতে চাচ্ছেন। নিশ নিয়ে আমার একটি ব্লগ রয়েছে এটা পড়তে এখানে ক্লিক করুন।

ব্লগ থেকে আয় ২য় ধাপ

ব্লগ থেকে আয় এই ধাপে আপনাকে প্রথমে ডমেইন ও হস্টিং সিলেক্ট করতে হবে। ব্লগিং থেকে ইনকাম করার জন্য খুব বেশি ভাল ডমেইন ও হস্টিং এর প্রয়োজন নেই। তবে ভাল কম্পানি থেকে ডমেইন হস্টিং না নিলে পরে আপনার ওয়েবসাইট যেকোনো সময় হাওয়া হয়ে যাবে। তাই এই বেপারে আপনাকে খুব সাবধান থাকতে হবে। আমার জানামতে এক্সজন হস্ট টা খূব ভাল। বাংলাদেশে এরা খুব ভাল সাভিস দেয়। আপনি চাইলে এক্সজন হোস্ট লেখাটিতে ক্লিক করে তাদের অফিসিয়াল ওয়েবসাইটটি ভিজিট করে আসতে পারেন।

ব্লগ থেকে আয় ৩য় ধাপ

ব্লগ থেকে আয় এই ধাপে আপনাকে ডমেইন হোস্টিং নেয়ার পর আপনাকে ওয়ার্ডপ্রেস ইনস্টল করতে হবে আপনি চাইলে অন্যকোন প্লাট ফরম ও ব্যবহার করতে পারেন। তবে সবচেয় বেশী ব্যবহার করে থাকে ওয়ার্ডপ্রেস। ওয়ার্ডপ্রেস সেট আপ হয়ে গেলে এবার ভাল একটি ফ্রি থিম বা পেইড থিম কাস্টমাইজেশন করে নিন। আপনি যদি এগুলো কিছুই না জানেন তাহলে কাউকে দিয়ে এই কাজটি করিয়ে নিতে পারবেন।

ব্লগ থেকে আয় ৪র্থ ধাপ

ব্লগ থেকে আয় এই ধাপে আপনার শুরু হবে আসল খেলা । এখন আপনার কাজ হচ্ছে শুধু ব্লগ বা আটিকেল লেখা। কীওয়ার্ড রিচার্চ করে আটিকেল লেখুন। আপনার কম্পিটিশন বা যাদেরকে আপনি পিছনে ফেলানোর চিন্তা করছেন তাদের ব্লগ গুলো পড়ুন। ভাবুন তার কি তথ্য দিয়েছে তাদের ব্লগে । এবার আপনি ভাবুন তাদের থেকে বেশী হেল্পফুল তথ্য আপনি দিতে পারবেন কি না । সে অনুযায়ী আপনি ব্লগ লিখুন।তাহলে আপনার ব্লগ গুগল রেংক করবে। এভাবে আপনি ভিজিটর ও বেশী পাবেন। তবে ব্লগ গুলো ৭০০ ওয়ার্ড এর বেশী লেখার চেষ্টা করবেন তাহলে গুগলে রেংক পেতে আরও সহজ হয়ে যাবে।

ব্লগ থেকে আয় – ৫ম ধাপ

ব্লগ থেকে আয় এই ধাপে ২০ টি আরটিকেল লেখা শেষ করুন । তবে ভাল মানের আরটিকেল ১০ থেকে ১৫টি হলেই আপনি গুগল এ্যাডসেন্স এর জন্য এপ্লাই করুন। গুগল এডস্যান্স কিভাবে এপ্লাই করতে হয় যদি না জেনে থাকেন তাহলে এই ব্লগটি পড়ুন।

আরও পড়ুন : ইউটিউব থেকে মাসে ৩০০ ডলার আয় করার উপায়

এবার আসুন জেনে নেই গুগল এ্যাডসেন্স এর জন্য এপ্লাই করতে হলে আপনাকে কী কী শর্ত মেনে চলতে হবে। চলুন জেনে নেয়া যাক।

  • আপনার লেখা গুলো অবশ্যই কপিরাইট ফ্রি হতে হবে মানে হচ্ছে আপনি কারুর লেখা কপি করতে পারবেন না । তাই সহজ কথা হল সব লেখা আপনার নিজের হতে হবে।
  • কপিরাইট ফ্রি ইমেজ ব্যবহার করুন। তবে কিভাবে কপিরাইট ইমেজ সংগ্রহ করবেন তা জানতে আমার অন্য একটি ব্লগ পড়ুন :
  • আপনার ওয়েসাইটে এবাউট আজ , কন্টাক্ট আজ, ডিসক্লেইমার , টার্মস এন্ড কন্ডিশান ব্যবহার করুন। তা না হলে আপনি গুগল এডস্যান্স পাবেন না।

এবার সবকিছু ঠিক থাকলে গুগল এডস্যান্স এর জন্য এপ্লাই করুন । অবশ্যই পেয়ে যাবেন। তবে যদি না পান তাহলে কোন কারনে পান নাই তারা তা জানিয়ে দিবে । পরবতীতে তা সংসোধন করে আবার এপ্লাই করুন। যখন আপনি গুগল এডস্যান্স পেয়ে যাবেন সেদিন থেকে গুগল আপনার প্রতিটি পোস্ট বা ব্লগে এ্যাড বসিয়ে দিবে।

তার পর ভিজিটর যখন আপনা পোস্ট গুলো পড়তে আসবে তখন তারা যদি এ্যাড এ ক্লিক করে তাহলে গুগল আপনাকে একটা এমাউন্ট পে করবে। আর এটাই হল গুগল এডস্যান্স থেকে আয় । তবে এ নিয়ে আমার বিস্তারিত একটি ব্লগ রয়েছে আপনারা চাইলে এখানে ভিজিট করতে পারেন।

ব্লগ থেকে আয়

উপরের ইমেজ টি খেয়াল করুন । Thank you একটি এ্যাড রয়েছে। এটি গুগল এর একটি এ্যাড । আপনি যখন গুগল এডসেন্স পেয়ে যাবেন ঠিক তখন গুগল ও আপনার প্রতিটি পোস্ট এ এমন এ্যাড বসাবে। আর তাতেই আপনি ইনকাম জেনারেট করতে পারবেন । আশা করি বুঝতে পারছেন বিষয়টি টি । আর যদি না বুঝে থাকেন তাহলে আপনি আমার ফেইজবুক পেইজ এ মেসেজ দিন । আমি আপনার সকল প্রশ্নের উত্তর দেয়ার চেষ্টা করব।

ব্লগ থেকে আয় কী কী উপায়ে হয়ে থাকে চলুন তা জেনে নিই :-

  • ব্লগ থেকে আয় করার অনেকগুলি মাধ্যম রয়েছে। যা আমরা অনেকেই জানি না। আমরা শুধু মাত্র গুগল এডস্যন্স কেই টার্গেট করি। আসুন জেনে নেই ব্লগ থেকে আয় আরও কিভাবে করা যায়আপনার ব্লগ সাইটটির সাথে গুগল এডসেন্স যুক্ত করে আপনার ব্লগে এড দেখিয়ে গুগল এডসেন্স থেকে অর্থ উপার্জন করতে পারবেন।
  • আপনি আপনার ব্লগ সাইটে এফিলিয়েট মার্কেটিং করে আয় করতে পারবেন। অর্থাৎ অন্য কারো প্রোডাক্ট নিজের সাইটে প্রোমোট করতে পারবেন এবং যখন কেউ আপনার ব্লগ সাইটে গিয়ে লিংক থেকে ওই প্রোডাক্ট ক্রয় করবে তার পরিবর্তে আপনি একটি কমিশন পাবেন যাকে এফিলিয়েট কমিশন বলা হয়।আর এভাবে অনেকেই প্রচুর টাকা ব্লগ থেকে আয় করছেন।
  • আপনার নিজের প্রোডাক্ট এর বিজ্ঞাপন আপনার ব্লগে দিযে ব্লগ থেকে আয় করতে পারবেন।
  • তাছাড়াও আপনি ভিবিন্ন ধরনের কোর্স সেল করে ব্লগ থেকে আয় করতে পারেন।

এবার ব্লগিং নিয়ে কিছু প্রশ্ন জেনে নিন :

১) আমি একজন স্টুডেন্ট আমি কি ব্লগ থেকে আয় করতে পারব?

উত্তর : হ্যা অবশ্যই পারবেন । তবে সে জন্য আপনাকে ব্লগ লেখার যোগ্যতা থাকতে হবে। বাংলাদেশে এমন অনেক ব্লগার আছে যারা স্টুডেন্ট কিন্তু ঘরে ব্লগিং করে মাসে ১০০০ ডলার আয় করছে । নিচের এই স্ক্রিন শর্ট টি দেখুন তাহলে চোখ কপালে উঠে যাবে। এটি ব্লগিং এর একটি গ্রুপ থেকে নেয় ।

২ ) বাংলা ব্লগ লিখে কি ইনকাম করা সম্ভব ?

উত্তর : হ্যা অবশ্যই সম্ভব। দিন দিন বাংলা ব্লগের প্রতিযোগীতা বেড়েই চলছে। গুগল ও বাংলা ব্লগ এডস্যান্স এপ্রুপ দিচ্ছে। আপনারা হয়ত বাংলাটেক ব্লগ সাইটটির কথা জানেন। উনি এই সাইট থেকে প্রতিমাসে ৪০০ ডলার এর ও বেশী ইনকাম করে থাকেন।

৩ ) ব্লগ থেকে আমি কতদিন পর ইনকাম বা আয় করতে পারব?

উত্তর : এটি নির্ভর করবে আপনার সময়ের উপর । আপনার যদি ব্লগিং এ ফুল টাইম সময় দেন তাহলে মাত্র ৩ মাস পর ই আপনি সফলতার মুখ দেখতে পারবেন। সাধারণত একটি ব্লগ সাইট সফলতা পেতে ৫ মাসের মত সময় লাগে ।

৪) ব্লগ থেকে কত টাকা আয় করা যায় ?

উত্তর : এটার হিসাব কেউ দিতে পারবে না । কারন আপনা্র সাইটে ভিজিটর মাসে কেমন আসে তা শুধু আপনি ই জানেন।সেই হিসাবে আপনার ইনকাম নির্নয় করা হয়ে থাকে। তাছাড়া আরও অনেক কিছু জড়িত রয়েছে যেমন, সিপিসি কেমন, আপনার ভিজিটর কোন দেশ থেকে ভিজিট করছে ইত্যাদি।

৫) আমার ল্যাপটপ নেই আমি কিভাবে ব্লগ থেকে আয় করব ?

উত্তর : বর্তমানে অনেকেই মোবাইল দিয়ে ব্লগিং করছে। তবে আপনার মোবাইল টি একটু ভাল মানের হতে হবে।

৬) ব্লগ থেকে আয় করতে হলে আমার ব্লগে কতটি পোস্ট করা লাগবে?

উত্তর : সাধারণত একটি ব্লগ সাইটে ১০ থেকে ১৫ টি আরটিকেল বা পোস্ট থাকলেই গুগল মামা এপ্রুপ দিয়ে দেয় । তবে আপনার পোস্ট যত বেশী থাকবে তত বেশী আপনি ব্লগ থেকে আয় করতে পারবেন।

৭) কোন বিষয় বা নিশ নিয়ে ব্লগ লিখলে আমি বেশী ইনকাম করতে পারব?

উত্তর : আপনি এমন একটি নিশ নিয়ে কাজ করতে হবে যে নিশ এর প্রতিযোগীতা খুব কম। তাহলে আপনি আপনার ব্লগের আরটিকেল গুলো খুব তারাতারী গুগল মামার কাছে রেংক পেয়ে যাবেন। এতে ভিজিটর আসবে বেশী বেশী আর ইনকাম ও হবে বেশী বেশী।

৮) আমি নতুন আমি কোন নিশ বা বিষয় নিয়ে ব্লগ শুরু করতে পারি?

উত্তর : আপনি ভাবুন আপনার কোন বিষয় নিয়ে লেখতে ভাল লাগে, কোন বিষয়টি আপনি ভাল জানেন সেই বিষয়টি নিয়ে ব্লগ শুরু করে দিন।

৯) ব্লগিং কি বাংলা লিখব নাকি ইংরেজী দিয়ে শুরু করব?

উত্তর : এটা একটা কঠিন প্রশ্ন তবে উত্তর খুব সহজ। আপনি যদি মনে করেন ইংরেজী আপনার পান্তা ভাত তাহলে আপনি ইংরেজীতে ব্লগিং শুরু করতে পারেন। এতে ইনকাম হবে বেশী ।আর যদি আপনি এত সব জামেলা না পোহাতে চান তাহলে বাংলাতে ই শুরু করে দিন। আজকাল বাংলা ব্লগিং করেও মাসে ১০০০ ডলার ব্লগ থেকে আয় করছে।

1 thought on “কিভাবে ব্লগ থেকে আয় করবেন [ ব্লগ থেকে আয় করার একটি পরিপূর্ণ গাইডলাইন ২০২২]”

Comments are closed.