২০২২ সালে অনলাইন ক্যারিয়ার করার দারুন ৬টি উপায়

আপনি যদি অনলাইন ক্যারিয়ার করতে চান তাহলে এই ব্লগটি আপনার জন্য। আপনি যদি অনলাইন ক্যারিয়ার করতে চান তাহলে নিচের ৭ টি নিয়ম ফলো করুন। আশা করছি আপনার জন্য উপকারে আসবে। দিন হতে দিন প্রযুক্তির উন্নয়ন শুধু বেড়েই চলছে। বাংলাদেশ ও অনেক এগিয়ে যাচ্ছে। তাহলে আপনি কেন পিছিয়ে থাকবেন? চলুন জেনে নেই অনলাইন ক্যারিয়ার করার ৭ টি গোপন formula.

অনলাইন ক্যারিয়ার করতে সঠিক একটি প্লান ঠিক করুন

প্রথমে আপনি কোন বিষয় নিয়ে কাজ করবেন তা ঠিক করুন। অনলাইন ক্যারিয়ার করার হাজার রকমের উপায় রয়েছে। এখন আপনাকে ঠিক করতে হবে আপনি কোন বিষয় নিয়ে কাজ করতে চান। যদি আপনি কোন রকম চিন্তায় থাকেন কি নিয়ে কাজ করবেন তাহলে এই বিষয়টি নিয়ে ইউটিউবে খুজুন। তাহলে এমন অনেক ভিডিও পেয়ে যাবেন। তবে যেকোনো একটা বিষয় আপনাকে ফোকাস এ রাখতে হবে। অনলাইনে ক্যারিয়ার

২) অনলাইন ক্যারিয়ার করতে আপনার সিলেক্ট করা বিষয়ের উপর স্টাডি করুন

ধরে নিলাম ঠিক করেছেন যেকোন একটি বিষয় নিয়ে কাজ করবেন। এবার সেই বিষয়ের উপর প্রচুর স্টাডি করুন। টানা তিন মাস স্টাডি করতে থাকুন। পাশাপাশি ভাল কোন মেন্টর পান কি না বা আপনার বিষয়টি ভাল জানে এমন একটি প্রফেশনাল মানের কোর্স কমপ্লিট করে ফেলুন। এতে আপনি হয়ে উঠবেন আরও প্রফেশনাল।

৩) কাজ শুরু করে দিন

এবার এই তিন মাস আপনি যেই বিষয়টি নিয়ে পড়াশোনা করলেন সেই বিষয় টি নিয়ে কাজ শুরু করে দিন। আপনার বিষয় রিলেটেড বিভিন্ন বড় বড় গ্রুপে এড হতে থাকুন। কোন কিছুতে আটকে গেলে সেখানে পোস্ট করুন। অনলাইনে আপনার সমস্যা নিয়ে গুগল করুন সমাধান পেয়ে যাবেন।

Read more : কিভাবে ব্লগ থেকে মাসে ১০০০ ডলার আয় করবেন

৪) একটি প্রফেশনাল মানের পোট ফলিও তৈরি করুন

আপনি কোন কোন বিষয়ে এক্সপার্ট তার একটি প্রফেশনাল মানের পোর্টফলিও তৈরি করুন। পাশাপাশি টুইটার, লিংকডিন এ প্রফাইল ক্রিয়েট করুন। এতে সবাই বুজতে পারবে আপনি কোন বিষয়ে এক্সপার্ট।

৫) লক্ষ্য ঠিক রেখে কাজ করুন

আপনি যেই বিষয়টি নিয়ে এতদিন স্টাডি ও কাজ শুরু করেছেন কোনভাবেই যেন সেই পথ ভ্রস্ট না হন সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে। কোনভাবেই মনোবল হারাবেন না। আপনি আপনার বিষয় বিষয়টিকেই প্রধান্য দিন। আর কারোর কথা কান দিবেন না। অনেকেই আপনাকে পিছনে নেয়ার চেস্টা করবে। সেসব চিন্তা মাথায় নিবেন না ভুলেও। তাহলে আপনি ও অনেক পিছিয়ে যাবেন। আপনি যা ভাবছেন তাই করুন । লেগে থাকুন। সাফল্য আসবেই।যদি আপনার লক্ষ্য ঠিক থাকে। মনে রাখবেন ভীতুরা মরার আগেই মরে। সাহস সামনে রেখে কাজ করে যান।

৬) রিচার্জ করুন আপনি এখন কোন অবস্থায় আছেন

কাজ শুরু করার ১বছর পর আপনি নিজেকে নিয়ে রিচার্জ করুন। আপনি এখন কেমন আছেন, আপনার কোথায় থাকা দরকার ছিল, আপনার কি কি ভুল ছিল, কোথায় সংশোধন করতে হবে তা একবার ভাবুন এবংসে অনুযায়ী সামনে এগিয়ে যান। এই সময়ে আশা করছি আপনার লক্ষ্যের কাছাকাছি পেীছে যাবেন। আস্তে আস্তে বিভিন্ন মাকের্ট প্লেসে একাউন্ট খোলে কাজ শুরু করুন। অনলাইনে আপনি যেই কাজটিই করেন না কেন সবগুলো কাজের ই ভবিষ্যত রয়েছে তবে আপনাকে যেকোন একটি বিষয়ে আপনাকে ফোকাস করতে হবে এবং সেটি নিয়ে কাজ করে যেতে হবে।

কেন অনলাইনে ক্যারিয়ার করবেন ?

বর্তমানে চাকুরীর বাজার অবস্থা কে না জানে? শত শত স্নাতক কৃতকার্য ভাইয়েরা আজ চাকুরীর জন্য কত রাত ঘুমায়নি । আমি নিজেও বেশ কয়েক বছর চাকুরী করেছি। কী যে কষ্ট সেটা যারা করে তারাই বলতে পারবে। দিন রাত খাটা খাটুনির পর মাস শেষে অনেকে বেতন ও ঠিক ভাবে পায় না। এজন্য অবশ্যই অনলাইন ক্যারিয়ার এর দরকার আছে। অনলাইনে ক্যারিয়ার

ভাই শুধু শুধু কেন আমার জীবনকে অন্যজন নিয়ন্ত্রন করবে। তাহলে আমার জীবন আমি কীভাবে উন্নতি করব। তাই একটা স্বাধীন পেশা হিসেবে আপনি অনলাইনে ক্যারিয়ার বেছে নিতে পারেন। আমার কাছে এমন ও লোক এর খবর আছে যিনি মাত্র তিন বছর এর ব্যবধানে মাসে ইনকাম করছেন চার লক্ষ টাকার ও বেশী। এটা এমন একটি পেশা আপনার যখন মন চায় তখন ই আপনি করতে পারবেন। আপনার বস আপনি নিজেই। আপনি ঘুমিয়ে থাকবেন কিন্তু আপনার ইনকাম বন্ধ হবে না, আপনার ইনকাম ঘুমাবে না। শুধু মাত্র শুরুর দিকে একটু বেশী পরিশ্রম করতে হয় ।

অনলাইনে ক্যারিয়ার করতে কী কী লাগে?

জানি এখন বলবেন অনলাইনে ইনকাম বা ক্যারিয়ার করতে হলে যা দরকার আপনি কিছু ই জানেন না। ভাই শুধু মাত্র একটি সেকেন্ড হ্যান্ড ল্যাপটপ আর ইন্টারনেট সংযোগ থাকলেই আপনি অনলাইনে ক্যারিয়ার করতে পারবেন। আমাদের মধ্যে একটা ভূল ধারনা কী অনলাইনে ইনকাম করতে হলে ভাল মোবাইল বা ভাল ল্যাপটপ অথবা কম্পিউটার লাগে। আপনি যদি এমন জেনে থাকেন তাহলে ভূল করছেন।

এমন হাজারো গরীব মেধাবী ছাত্র রয়েছে যারা প্রতিদিন দু মুঠো ভাত খাওয়ার জন্য জীবনের সাথে লড়াই করে যাচ্ছে প্রতিদিন। গ্রামের অজাপাড়া গায়ে ভাল করে নেটওয়ার্ক ও নেই সেখান থেকে কাজ করে লক্ষ লক্ষ টাকা ইনকাম করছে। তাহলে আপনি বা আমি পারব না কেন? মনের বিশ্বাস ই আপনাকে অনেক দূর নিয়ে যাবে। শুধু ব্শ্বিাস রাখুন আপনি পারবেন। রায়ান কাজির কথা আমরা কে না জানি তার ইউটিউব থেকে ইনকাম হয় মাসে ২ কোটি ৬০ লাখ ডলার। পড়ুন : কীভাবে ইউটিউব থেকে মাসে ১০০০ ডলার ইনকাম করবেন

আপনি যদি রায়ান কাজির চ্যানেলটি ভিজিট করতে চান তাহলে এখানে ক্লিক করুন

আরও পড়ুন : কীভাবে ইউটিউব চ্যানেল খুলবেন ও ইনকাম করবেন

সবশেষে একটা কথাই বলব আজ থেকেই শুরু করে দিন অনলাইন ক্যারিয়ার। যদি শুরু ই না করেন তাহলে শেষ হবে কীভাবে। ধৌর্য ধরে কাজ করে যান একদিন সফলতা আসবেই।

Leave a Comment

Your email address will not be published.